Logo

বগুড়ার গাবতলীতে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত ;৭টি বাড়ী লকডাউন

বগুড়ার গাবতলীতে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত ;৭টি বাড়ী লকডাউন

এনামুল হক রাঙ্গা:  বগুড়ার গাবতলীতে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে। করোনা রোগে আক্রান্ত সিরাজুল ইসলাম (২৫) রামেশ^রপুর ইউনিয়নের পাঁচকাতুলী গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে। আক্রান্ত ব্যক্তিকে নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামে নানার বাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে। সেইসাথে গত বৃহস্পতিবার রাতেই পাঁচকাতুলী গ্রামে সিরাজুলের বাবা ও চাচার বাড়ী এবং হাপানিয়া গ্রামে তার নানার বাড়ীসহ আশপাশের ৫টি বাড়ী মোট ৭টি বাড়ী লক ডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন। জানা গেছে, উপজেলার রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের পাঁচকাতুলী গ্রামের আজিম উদ্দিন প্রাং এর ছেলে সিরাজুল ইসলাম ঢাকার একটি দোকানে এম্বোটারীর কাজ করতো। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কাজ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল ঢাকা থেকে বাড়ীর উদ্দ্যেশে রওনা দেয়। পথিমধ্যে রাত হলে সিরাজগঞ্জ এসে তার এক বন্ধুর বাড়ীতে এক রাত কাটায়। এরপর গত ১৬ এপ্রিল সিরাজুল তার গ্রামের বাড়ী পাঁচকাতুলীতে আসে। বাড়ীতে আসার পর সিরাজুল গ্রামবাসীর নজরে পড়ে যায়। গ্রামবাসী সিরাজুলকে বাড়ী থেকে চলে যেতে বললে সে নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামে তার নানার বাড়ীতে গোপনে আশ্রয় নেয়। সেখানেও সে বাধার মুখে পড়লে গাবতলী আলিম মাদ্রাসা সংলগ্ন জয়ভোগা আশ্রয়ন কেন্দ্রে তার খালাতো ভাই সাইফুলের বাড়ীতে রাতে আশ্রয় চাইলে সাইফুল জমির মধ্যে একটি মেশিন ঘরে থাকতে দেয়। সেখানেও সিরাজুল বাধার মুখে পড়লে গত বুধবার (২২এপ্রিল) দুপুরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (শজিমেক) করোনা পরীক্ষর জন্য নমুনা দিয়ে চলে আসে। গত বৃহস্পতিবার বিকেলে সিরাজুলে শরীরে করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে এমন তথ্য বগুড়া শজিমেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বগুড়া সিভিল সার্জন ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন উপজেলা প.প. কর্মকর্তা ডাঃ শারমিনা পারভীনকে, জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহমেদ গাবতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রওনক জাহানকে ও পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা তাৎক্ষনিক গাবতলী থানার ওসি সাবের রেজা আহমেদকে জানালে গত বৃহস্পতিবার রাতেই উপজেলা প্রশাসন সিরাজুলকে উদ্ধার করে নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামে তার নানার বাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছেন বলে তিন দপ্তরের প্রধান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে গাবতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ শারমিনা পারভীন স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, সিরাজুলকে তার নানার বাড়ীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে সেবা দেয়া হচ্ছে। তার শরীরে জোন জ্বর নাই। তাকে আবারও পরীক্ষা করা হবে বলে জানা গেছে। আক্রান্ত সিরাজুলের করোনা পজেটিভের কারণে পাঁচকাতুলী গ্রামে ২টি, নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামে তার নানার বাড়ীসহ ৫টি এবং গাবতলী আলিম মাদ্রাসা সংলগ্ন জয়ভোগা আশ্রয়ন কেন্দ্র লক-ডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। বিষয়টি ইউএনও রওনক জাহান এবং থানার ওসি সাবের রেজা আহম্মেদ নিশ্চিত করেছেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

12 − one =


Theme Created By Raytahost.Com