Logo

বগুড়ার ধুনটে প্রতিবন্ধি কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বগুড়ার ধুনটে প্রতিবন্ধি কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বগুড়া থেকে এনামুল হক রাঙ্গা : বগুড়ার ধুনটে শারীরিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া উঠেছে। ২৬ এপ্রিল উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের ধামাচামা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় মেয়েটি নিজেই বাদি হয়ে ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। ওই মামলায় ধামাচামা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে পরিবহন শ্রমিক বিটুল মিয়া (১৯) ও তার বন্ধু একই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে হোসেন আলী (২২) কে আসামী করা হয়েছে। জানাযায়, প্রতিবন্ধী ওই কিশোরী ধামাচামা গ্রামের নিজ বাড়িতে দাদীর সাথে থাকেন। তার বাবা – মা কর্মের তাগিদে ঢাকায় পোশাক কারখানায় চাকুরী করেন। ঘটনার দিন ওই কিশোরীকে ডাক দেয় চাচাতো ভাই বিটুল। পরে সে কৌশলে ওই কিশোরীকে বিটুল তার বন্ধু হোসেন আলীর বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বিটুল মিয়া ওই কিশোরীর হাত-পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। কিশোরীর চিৎকারে তার দাদী এগিয়ে এলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ধর্ষণের শিকার মেয়েটির লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।বগুড়ার ধুনটে শারীরিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া উঠেছে। ২৬ এপ্রিল উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের ধামাচামা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় মেয়েটি নিজেই বাদি হয়ে ধুনট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। ওই মামলায় ধামাচামা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে পরিবহন শ্রমিক বিটুল মিয়া (১৯) ও তার বন্ধু একই গ্রামের জাহিদুল ইসলামের ছেলে হোসেন আলী (২২) কে আসামী করা হয়েছে। জানাযায়, প্রতিবন্ধী ওই কিশোরী ধামাচামা গ্রামের নিজ বাড়িতে দাদীর সাথে থাকেন। তার বাবা – মা কর্মের তাগিদে ঢাকায় পোশাক কারখানায় চাকুরী করেন। ঘটনার দিন ওই কিশোরীকে ডাক দেয় চাচাতো ভাই বিটুল। পরে সে কৌশলে ওই কিশোরীকে বিটুল তার বন্ধু হোসেন আলীর বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে বিটুল মিয়া ওই কিশোরীর হাত-পা ও মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। কিশোরীর চিৎকারে তার দাদী এগিয়ে এলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ধর্ষণের শিকার মেয়েটির লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *