Logo

বগুড়ায় পুলিশ -শ্রমিক সংর্ঘষে আহত -১৪

বগুড়ায় পুলিশ -শ্রমিক সংর্ঘষে আহত -১৪

এনামুল হক রাঙ্গা বগুড়া : বগুড়ার শেরপুরে রনক স্পিনিং মিলে বকেয়া বেতন- বোনাসের দাবীতে বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রনে আনতেে পুুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে। এসময় পুলিশ শ্রমিক সংর্ঘষে পুলিশসহ ১৪ জন আহত হয়। শ্রমিকদের নিক্ষেপ করা ইটপাটকেলের আঘাতে চার পুলিশ এবং লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেটে কমপক্ষে ১০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এই সংর্ঘষ চলে। এঘটনার পর শ্রমিকদের বেতন বোনাস দেয়ার আশ্বাস দিয়ে রনক স্পিনিং মিলের জিএম ও প্রডাকশন ম্যানেজারকে প্রত্যাহার করা হলে দুপুর দুইটায় শ্রমিকরা কাজে যোগ দেন।জানাগেছে, শেরপুর উপজেলার ভবানীপুরে রনক স্পিনিং মিলে পাঁচ শতাধিক শ্রমিক কাজ করেন। করোনা ভাইরাস সংক্রমনের কারণে কিছুদিন মিল বন্ধ রাখার পর আবারো চালু করা হলে শ্রমিকরা কাজে যোগ দেয়। গত মাসের বেতন ও বোনাসের দাবী করে আসলেও তারা কোন আশ্বাস না পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে কাজে যোগ দিয়ে বিক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠেন। এক পর্যায় শ্রমিকরা সেখানে ভাংচুর শুরু করলে পুলিশ পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। এসময় শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।পুলিশ লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ব্যর্থ হলে রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এতে শ্রমিকরা পিছু হটলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান ও রনক স্পিনিং মিলের কর্পোরেট জিএম আব্দুল কাদের বৈঠকে বসে। বৈঠক শেষে শ্রমিকদের দাবী দাওয়া মেনে নেয়া ছাড়াও সংর্ঘষে আহত শ্রমিকদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেয়ার ঘোষনা দেয়া হলে শ্রমিকরা শান্ত হয় কাজে যোগদান করেন। শেরপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে সেখানে দুই প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বেতন বোনাসের আশ্বাস পেয়ে শ্রমিকরা কাজে যোগ দিয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

one × 3 =


Theme Created By Raytahost.Com