Logo
HEL [tta_listen_btn]

ডাক্তার-নার্স আসেনি অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেল নারায়ণগঞ্জের আক্তার

ডাক্তার-নার্স আসেনি অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেল নারায়ণগঞ্জের আক্তার

নিজস্ব সংবাদদাতা:
অসুস্থ আক্তার হোসেনের স্ত্রী ও স্বজনদের আহাজারিও মন গলাতে পারেনি মুগদা হাসপাতালের ডাক্তার-নার্সদের। মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা না পেয়ে অ্যাম্বুলেন্সেই মারা যান আক্তার হোসেন। আক্তার হোসেনের তীব্র্র শ্বাসকষ্ট হওয়ায় শুক্রবার তাকে নিয়ে হাসপাতালের গেটে অ্যাম্বুলেন্সে এক ঘণ্টা অপেক্ষা করেছেন স্ত্রী ও স্বজনরা। কিন্তু তাকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে পারেননি তারা। এমনকি ডাক্তার-নার্স কেউ দেখতেও আসেননি। এক ঘণ্টা পরে তার আত্মীয়-স্বজনের কাকুতি-মিনতি ও উপস্থিত সাংবাদিকদের অনুরোধে স্বাস্থ্যকর্মীরা অসুস্থ আক্তারকে দেখতে আসলেও ততক্ষণে মারা যান তিনি। তখন অ্যাম্বুলেন্সে কান্নায় ভেঙে পড়েন আক্তারের স্ত্রী। আক্তার হোসেনের স্বজনরা জানান, তাদের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে। বাড়ি থেকে তারা অ্যাম্বুলেন্সে আক্তারকে নিয়ে ঢাকায় আসেন। তাদের অভিযোগ, আক্তারের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ থাকলেও নারায়ণগঞ্জের অনেক হাসপাতাল ঘুরেও কোথাও তাকে ভর্তি করাতে পারেননি। এমনকি ঢাকার মুগদা হাসপাতালে তারা এক ঘণ্টা অপেক্ষা করেও তাকে ভর্তি করাতে পারেননি। কোনো ডাক্তার-নার্স তাকে দেখতে আসেননি। তারা জানান, কয়েকদিন থেকে আক্তারের শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। ক্রমে শ্বাসকষ্ট তীব্র হচ্ছিল। অন্যান্য রোগীর অভিযোগ মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা নেই বললেই চলে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করেও ডাক্তার-নার্সের দেখা মেলে না। রোগীদের স্বজনদের শত অনুরোধও ডাক্তার-নার্সের কানে যায় না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকেই


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com