Logo
HEL [tta_listen_btn]

নারায়ণগঞ্জে হকারদের ডিসি অফিস ঘেরাও, স্মারকলিপি প্রদান

নারায়ণগঞ্জে হকারদের ডিসি অফিস ঘেরাও, স্মারকলিপি প্রদান

নিজস্ব সংবাদদাতা:
নারায়ণগঞ্জে ফুটপাতে বসার দাবিতে জেলা প্রশাসকের কার্যলয় ঘেরাও করেছে হকাররা। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) বেলা সোয়া ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয় শতাধিক হকার। রোববার এক বিক্ষোভ সমাবেশে পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ করলে আন্দোলনের ঘোষণা দেয় নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার সংগ্রাম পরিষদ। ফুটপাতে বসতে প্রশাসন বাধা দিলে ডিসির কার্যালয় ঘেরাও করার কর্মসূচি ঘোষণা করে তারা। পূর্ব কর্মসূচি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জড়ো হয় হকাররা। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন তারা। পরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় অভিমুখে রওয়ানা হয় হকাররা। পরে বিভিন্ন দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেন তারা। নারায়ণগঞ্জ জেলা হকার্স সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন মহানগর হকার্সলীগের সভাপতি রহিম মুন্সি, জেলা হকার সংগ্রাম পরিষদের আহবায়য়ক আসাদুল ইসলাম আসাদ। সংহতি জানিয়ে উপস্থিত ছিলেন জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, হকার্স সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কাজী সিকান্দার হায়াৎ, জেলা ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সভাপতি আব্দুল হাই শরীফ, সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দাস, গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি এমএ শাহীন। হকার নেতারা বলেন, জনগণের ভোগান্তির কারণ হতে আমরা চাই না। কিন্তু আমাদের উচ্ছেদের আগে আমাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করুন। করোনার এই দুর্যোগকালে সব নিম্ন আয়ের মানুষ সরকারের ত্রাণ পেয়েছে কিন্তু হকাররা তা পাই নাই। তারা বলেন, মেয়র আইভী শুধু নারায়ণগঞ্জের নয়, সারা বাংলাদেশের গর্ব। আর নারায়ণগঞ্জবাসী তাকে ভালবাসে বলেই তাকে জনগণ বারবার ভোট দিয়ে মেয়র নির্বাচিত করেছেন। যাকে নিয়ে আমরা গর্ব করি তার কাছেই আমাদের দাবি আদায়ে এখন এত সংগ্রাম করতে হচ্ছে। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের বিষয়। হকারদের তালিকা করে তাদের পুনর্বাসনের দাবি জানান নেতৃবৃন্দ। কোন ব্যবস্থা ছাড়া ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ করা চলবে না বলেও হুশিয়ারি দেন তারা। হকারদের জন্য চাষাঢ়ায় পৌর হকার্স মার্কেটে বহুতল ও আধুনিক ভবন নির্মাণ, পুনর্বাসন না করা পর্যন্ত ফুটপাতেই বসতে দেওয়ার সুযোগ, রেশন কার্ড ও খাদ্য সহায়তা ব্যবস্থা করাসহ বেশ কয়েকটি দাবি উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন নেতৃবৃন্দ। এ সময় জেলা প্রশাসক মো জসিম উদ্দিন জানান, আগামী আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভাতে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হবে। তিনি বলেন, লম্বা সময়ের লকডাউনের কারণে আপনাদের মত ব্যবসায়ীরা কষ্টে আছেন তা সত্য। তা সরকারও জানে। আমরাও আগামী আইনশৃঙ্খলা কমিটির মিটিংয়ে প্রসঙ্গটি তুলবো। হকার্স মার্কেটসহ আরও কয়েকটি দাবির প্রেক্ষিতে সিটি মেয়রের সাথে আলোচনার পরামর্শ দেন ডিসি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com