Logo

স্মার্টফোনের জন্য কলেজ  ছাত্রীর আত্মহত্যা

স্মার্টফোনের জন্য কলেজ  ছাত্রীর আত্মহত্যা

রূপগঞ্জ সংবাদদাতা:
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মোবাইল কিনে না দেয়ায় অভিমান করে রানী আক্তার (১৮) নামে কলেজ পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। শনিবার (১৮ জুলাই) রাতে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার ত্রিশকাহনীয় এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। খবর পেয়ে পুলিশ ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। নিহতের মা নাজমা বেগম জানান, তার মেয়ে রানী আক্তার স্থানীয় সলিমউদ্দিন চৌধুরী বিশ^বিদ্যালয় কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী। কয়েকদিন ধরে রানী আক্তার তার বাবার কাছে একটি স্মার্টফোনের জন্য বায়না করে আসছে। মা নাজমা বেগম ঈদের পরে মোবাইল কিনে দিবে বলে মেয়েকে বলেন। কিন্তু সেই কথা মানতে নারাজ রানী আক্তার। এদিকে শনিবার সন্ধ্যার সময় মোবাইল কিনে দেয়ার জন্য রানী আক্তার তার মাকে চাপ দেয়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। রাত এগারোটার দিকে সেই অভিমানে নিজ ঘরের ভিতর সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে নাজমা। রাত ১২টার দিকে মা নাজমা বেগম রানীর থাকার ঘরের ভিতর গিয়ে তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর ও পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে ভোলাব তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম বলেন, আত্মহত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে। পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় স্থানীয় কাউন্সিলের সুপারিশের মাধ্যমে বিনা ময়নাতদন্তের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com