Logo
HEL [tta_listen_btn]

জয়নালের বিরুদ্ধে  বাড়ি দখলের অভিযোগ

জয়নালের বিরুদ্ধে  বাড়ি দখলের অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা:
নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় বাক প্রতিবন্ধী এক বৃদ্ধের বসতবাড়ি দখলের চেষ্টাসহ হামলা ও নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে জাতীয় পার্টির নেতা জয়নাল আবেদীনের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী পরিবারটির দাবি, জয়নাল আবেদীন তাদের বাড়ি দখলের উদ্দেশ্যে নানাভাবে নির্যাতনসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। থানায় অভিযোগ করেও তারা পুলিশের সহায়তা পাচ্ছেন না। বাকপ্রতিবন্ধী ওমর ফারুকের ছোট মেয়ে মাদ্রাসা শিক্ষক ঝুমুর জানান, নগরীর চাষাঢ়ায় সরকারি মহিলা কলেজের পেছনে রেললাইনের পাশে পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া পৌনে ছয় শতাংশ জমির উপর বসতবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন তারা। তাদের বাড়ির তিন পাশে জায়গা কিনে এখন বসতবাড়িটি জোরপূর্বক দখলের পাঁয়তারা করছেন জয়নাল আবেদীন। শুক্রবার তাদের বাড়িতে হামলা করে টিনের সীমানা প্রাচীর লুট করে নিয়ে যায় জয়নাল আবেদীনের লোকজন। এরপর তার বৃদ্ধা মাকে মারধরসহ হাত পা বেঁধে চাষাঢ়ায় আল জয়নাল ট্রেড সেন্টারে জয়নালের ব্যক্তিগত অফিসে নিয়ে অপমান করা হয়। ঝুমুর বলেন, সন্ত্রাসীরা হাত-পা বেঁধে আমার মাকে তুলে নিয়ে জয়নালের পায়ের উপর ফেলে বলে ‘পা ধরে মাফ চা, দয়া ভিক্ষা চা, বাড়ি ভিক্ষা চা। নয়তো বাড়ি ছেড়ে চলে যা। না গেলে তোদের গুষ্টিশুদ্ধ মেরে ফেলব’। ওমর ফারুকের স্ত্রী নাজমা বেগম বলেন, বেশ কয়েকদিন যাবত আমাদের বাড়ি দখলের জন্য জয়নাল হুমকি দিচ্ছে। সে আমাদের বাড়ি কেনার জন্য কোন প্রস্তাব দেয়নি। জবরদখল করে নিতে চায়। আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি কিন্তু পুলিশ আসে না। জয়নালের লোকজন আমাদের বাড়ির টিনের বেড়া খুলে লুটপাট করে নিয়ে গেছে। নাজমা বেগম বলেন, আমি এসপি স্যারের কাছে গিয়েও জানিয়েছি। তিনি তখন ব্যবস্থা নিলে এইভাবে হামলা ও লুটপাট করতে পারতো না। এখন আমাদের সাহায্য করার মতো আল্লাহ ছাড়া আর কেউ নাই। এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত জাতীয় পার্টির নেতা জয়নাল আবেদীনের মুঠোফোনের নম্বরটিতে একাধিক কল করা হলেও সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ ব্যাপারে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি জেনেছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযুক্ত ব্যক্তি যতো প্রভাবশালী হোক না কেন দোষ প্রমান হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। জয়নাল আবেদীন ওরফে আল জয়নালের বিরুদ্ধে চাষাঢ়ায় রাজউকের অনুমোদন ছাড়া আল জয়নাল ট্রেড সেন্টার নামে বানিজ্যিক ভবন নির্মাণ এবং রেলওয়ের জমি দখলের অভিযোগেও মামলা চলমান রয়েছে। জমি সংক্রান্ত বিষয়ে একাধিক মামলায় তিনি বেশ কয়েকবার জেলও খেটেছেন। এছাড়া গত বছর সদর থানায় গিয়ে পুলিশ সদস্যকে লক্ষ্য করে প্রকাশ্যে গুলি করে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদের শিরোনাম হন এই জয়নাল আবেদীন ওরফে আল জয়নাল।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com