Logo

না’গঞ্জে আনন্দ ও বিষাদে  প্রতিমা বিসর্জন

না’গঞ্জে আনন্দ ও বিষাদে  প্রতিমা বিসর্জন

নিজস্ব সংবাদদাতা:
প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা শেষ হয়েছে। উলুধ্বনি, শঙ্খ ও ঢোল বাজিয়ে পানিতে ভাসানো হয় প্রতিমা। বিসর্জনের সময় আনন্দের পাশাপাশি ভক্তদের মধ্যে বিষাদেরও ছাপ ছিল। নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন পুজা মন্ডপ ঘুরে ও ৩নং ঘাটে প্রতিমা বিসর্জনের সময় এ চিত্র দেখা যায়। কৈলাশ ছেড়ে মর্ত্যলোকে এসেছিলেন দেবী দূর্গা। ভক্তের দুঃখকে দূর করে শান্তি বিলিয়ে দিয়ে গজে করে চলে যাবেন মা দূর্গা। তাই মন্ডপে মন্ডপে বাজছে বিদায়ের ঘন্টা। বিজয় দশমীর পুজার মধ্যে দিয়ে শেষ হলো সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। করোনা মহামারির কারণে এবার উৎসবকে বাদ দেয়া হয়েছে, বাদ দেয়া হয়েছে আনন্দ শোভাযাত্রা। এদিকে, নগরীর ৩নং সার ঘাট এলাকায় দেখা যায়, প্রতি বছর সন্ধ্যার পর থেকে বিসর্জন শুরু হলেও এবার করোনার কারণে বিসর্জন সন্ধ্যার আগেই শেষ হয়। সকাল থেকেই সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে ঘাটের আশে পাশে দেয়া হয়েছে জীবানুনাশক স্প্রে। প্রথমে ফতুল্লা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রঞ্জিত মন্ডলের নেতৃত্বে ফতুল্লা বারৈভোগ শ্রী শ্রী রাধাকৃষ্ণ মন্দিরের প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে শুরু হয় বিসর্জন। বিসর্জন ঘিরে যাতে কোনো অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয়, সেজন্য নগরীতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। ঘাট এলাকায় জুরে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। দূর্ঘটনা এড়াতে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি ইউনিট, নৌ পুলিশের একটি ইউনিট, জেনারেল হাসপাতাল(ভিক্টোরিয়া) এম্বুল্যান্স অবস্থান করছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *