Logo
HEL [tta_listen_btn]

কুষ্টিয়ায় ভোক্তা অধিকার দিবস উদযাপন

কুষ্টিয়ায় ভোক্তা অধিকার দিবস উদযাপন

ভ্রাম্যমান সংবাদদাতা :
মুজিববর্ষে শপথ করি, প্লাস্টিক দূষণ রোধ করি” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে প্রতিবারের ন্যায় এবারও উদযাপন করা হচ্ছে বিশ্ব ভোক্তা-অধিকার দিবস ২০২১। আজ সোমবার ১৫ মার্চ জেলা প্রশাসন ও জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর,কুষ্টিয়ার উদ্যোগে দিনব্যাপী নানা কর্মসুচীর মধ্যদিয়ে দিবসটি পালন করা হয়েছে। সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে কালেক্টরেট চত্বরে বেলুন ও ফেস্টুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে দিবসটির উদ্ভোধন ও ট্রাক-শো এর শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করা হয়। এরপর সকাল ১০ টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় ভোক্তা অধিকার দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক মৃণাল কান্তি দে এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যজিস্ট্রেট মোঃ সিরাজুল ইসলাম, কনজুমারস্ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) কুষ্টিয়া জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক নাফিজ আহম্মেদ খান টিটু, কুষ্টিয়া কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল আলম টুকু, কুষ্টিয়া চেম্বার অব কমার্সেও সহ সভাপতি এস এম কাদেরী শাকিল, জেলা তথ্য অফিসার শিল্পী মন্ডল, জেলা বাজার কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম । আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন, জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর,কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক কাজী রকিবুল হাসান । এসময় কাজী রকিবুল হাসান বলেন, বাংলাদেশে এবার সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জমশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) ও স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনকে সামনে রেখে জাতীয় ভোক্ত অধিকার দিবসে এবারের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। “মুজিববর্ষে শপথ করি, প্লাস্টিক দূষণ রোধ করি”। সকল অংশীজনের সার্বিক সহযোগিতায় কুষ্টিয়া জেলায় ভোক্তা অধিকার সুরক্ষায় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, আমরা কুষ্টিয়া জেলা কার্যালয় সর্বদা সচেষ্ট ভুমিকা পালন করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। জাতীয় ভোক্তা অধিকার দিবস উপলক্ষে আমরা আজ সকাল থেকে জেলার ৬ টি উপজেলায় ট্রাক-শো এর ব্যবস্থা করেছি। তিনি আরও বলেন,‘ভোক্তা অধিকার সর্বজনীন। পণ্যের ন্যায্যমূল্য ও গুণগত মান নিশ্চিত করার মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ‘ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯’ প্রণয়ন করা হয়েছে। আইন প্রণয়নের পাশাপাশি এর যথাযথ প্রয়োগ অত্যন্ত জরুরি। আইনের যথাযথ বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজন জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী ও জনগণের সম্মিলিত প্রচেষ্টা। ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর কুষ্টিয়া ভোক্তাদের আস্থা অর্জনে আরো বেশি সচেষ্ট থাকবে বলে আমি প্রত্যাশা করি। এসময় জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, কনজুমারস্ এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) এর প্রতিনিধি দল সহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com