Logo

না’গঞ্জ সংগ্রাম পরিষদের মানববন্ধন

না’গঞ্জ সংগ্রাম পরিষদের মানববন্ধন

নিজস্ব সংবাদদাতা:
লকডাউনে রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজিবাইক চালকদের জীবন রক্ষার্থে খাদ্য ও নগদ সহায়তা এবং রিকশা ভাংচুর, হয়রানি বন্ধের দাবিতে রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদের দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ জেলার উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলার আহয়ক মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম শরীফ, সংগ্রাম পরিষদের জেলার সহ-সভাপতি মোঃ আলী, খোরশেদ আলম, সদস্য সচিব ফজলুল হক, যুগ্ম সচিব তাজুল ইসলাম। নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু সারাদেশে ৫০ লাখ রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজিবাইক চালকের জীবন-জীবিকা রক্ষায় সরকার কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। ফলে চালক ও তার উপর নির্ভরশীল প্রায় আড়াই কোটি মানুষের জীবন বাঁচাতে তারা রাস্তায় রিকশা চালাতে বাধ্য হয়েছেন। দেখা যাচ্ছে রাস্তায় বেরুলে তারা বাঁধা, আটক, হয়রানি, ভাংচুরের শিকার হচ্ছে। অধিকাংশ চালক ঋণের মাধ্যমে রিকশা করায় তাদের কিস্তি দিতে হয় তার উপর আছে পরিবার পরিজনের ভরণপোষণ। নেতৃবৃন্দ বলেন, জীবন বাঁচানোর জন্য লকডাউন প্রয়োজন। কিন্তু লকডাউনে দিন আনে দিন খাওয়া রিকশা চালকদের রিকশা চালাতে না দিলে পরিবার পরিজন নিয়ে তাদের অনাহাওে মরা ছাড়া কোন পথ থাকবে না। ৫০ লাখ রিকশা চালক ও তাদের পরিবার পরিজন রক্ষায় লকডাউনে প্রতিদিন তাদের খাদ্য ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করতে হবে। সারাদেশে যেখানে রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজিবাইক আটক, ভাংচুর বন্ধ করতে হবে এবং ভাংচুর হওয়া রিকশা চালকদের তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *