Logo

মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিনের স্মরণসভা

মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দিনের স্মরণসভা

নিজস্ব সংবাদদাতা:
বৃহস্পতিবার (৬ মে)সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনস্থ নারায়ণগঞ্জ টিভি মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড আয়োজিত তোলারাম কলেজ ছাত্র-ছাত্রী সংসদের সাবেকএজিএস, বাংলাদেশ হোসিয়ারী সমিতির সাবেক ডিরেক্টর বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিনের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।স্মরণসভায় বক্তারা বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিনের মতো সাহসী, সৎ , পরোপকারি মানুষ প্রতিদিন জন্মায়না। তার মতো মানুষের সংকট বলেই আজ সমাজে সত্য, ন্যায় প্রতিষ্ঠিত হয়না, মানুষের পাশে দাঁড়ানো মানুষের অভাব বোধ হয়। স্মরণসভায় বক্তারা একথা বলেন। জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার এডভোকেট নুরুলহুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় বক্তব্যা রাখেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ্আলম, সাবেক সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুররহমান মাসুম, দৈনিক সংবাদের চীফ রিপোর্টার সালাম জুবায়ের, বাংলাদেশ হোসিয়ারী সমিতির সহ-সভাপতি সাঈদ আহমেদ স্বপন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা কমান্ডার শাজাহানভ‚ইয়াজুলহাস, মরহুমের ছোট বেলার বন্ধু মোশারফ হোসেন মাখন, খেলা ঘরের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জহিরুলইসলাম জহির, সাবেক সংসদ সদস্য আফজাল হোসেনের ছেলে তারেক আফজাল, মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহমেদ রতন, মুক্তিযোদ্ধা হামিদুর রহমান বাঙ্গালী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের জেলা শাখার সদস্য সচিব ইঞ্জিনিয়ার রাজিব, সন্তান কমান্ডের বন্দর শাখার আহবায়ক শেখকামাল, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের বন্দর উপজেলার সভাপতি নাজমা বেগম, সাজিম আহমেদ প্রমুখ। স্মরণসভায় মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন আহমেদ রতন বলেন, মাসদাইরে প্রথম প্রতিরোধ যুদ্ধে কমান্ডার সিরাজুলইসলামের নেতৃত্বে নাসিরউদ্দিন সহ কিশোর তরুনদের একটি গ্রুপ অংশ নেয়। প্রতিরোধ যুদ্ধে নাসিরউদ্দিন অসাধারণ বীরত্ব প্রদর্শনকরে। এটাই বাংলাদেশে পাকিস্থানী সেনাবাহিনীর সাথে প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধের ঘটনা। এ জন্য নুরুমিয়া চৌধুরী বাচ্চু জেলা প্রশাসকের (তৎকালীনএসডিও) অস্ত্রাগার খুলে দেয়। দৈনিক সংবাদের চীফরিপোর্টার সালাম জুবায়ের বলেন, ভারতে জেনারেল মানেকশ’র বাড়ির সামনে দিয়ে গাড়ি র হর্ণ বাজানো নিষেধ। যাতে তিনি বিরক্ত নাহন। তার প্রতি সম্মানজানাতে এটা করা হয়েছে। অথচ মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন সহ এদেশ স্বাধীন করা মুক্তিযোদ্ধারা তাদের যথাযথ মুল্যায়ন পায়নি। তারাই এদেশের প্রথম সেনাবাহিনী। কিন্তু এক সময় তাদের নাম নেয়াও নিষেধ ছিলো। প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনা মুল্যায়ন করেছেন বলে এখন মুক্তিযোদ্ধারা  মুল্যায়িত হয়। নইলেতা-ও হতোনা। বাংলাদেশ হোসিয়ারী সমিতির সহ-সভাপতি সাঈদ আহমেদ স্বপনবলেন, আজ নয়ামাটিতে আগুনলাগলে এখানকার ঘিঞ্জি রাস্তার কথা আলোচিত হয়। কিন্তু আজ থেকে প্রায় পয়ত্রিশ বছর আগে মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিনসহ আরো কয়েকজন শীর্ষ হোসিয়ারীব্যবসায়ী এ সমস্যারকথা ভেবেপঞ্চবটিতেবিসিক হোসিয়ারীপল্লীগড়ে তোলার জন্য উদ্যোগীভ‚মিকানিয়েছিলেন। নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেন, মোহাম্মদ নাসিরউদ্দিন ছাত্রাবস্থায়ই রাজনীতির সাথে জড়িত হন। তিনি আধ্যাত্মিক সাধনাও করেছেন। ধর্মীয় বিষয়ে তার অনেক গভীরজ্ঞান ছিলো। অসাম্প্রদায়িক এ মানুষটি মুক্তিযুদ্ধ ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে দেশের ক্রান্তিকালে মানুষের পাশে প্রচন্ড সাহস নিয়ে দাঁড়িয়েছেন। খেলাঘরের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক জহিরুলইসলাম জহির বলেন, মুক্তিযোদ্ধা নাসিরউদ্দিন ও তাদের পরিবার নারায়ণগঞ্জের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে সরাসরি যুক্ত ছিলেন ও পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *