Logo
HEL [tta_listen_btn]

পুলিশ পরিচয়ে অপহরণ, মামলা নিতে পুলিশের গড়িমসি

পুলিশ পরিচয়ে অপহরণ, মামলা নিতে পুলিশের গড়িমসি

রূপগঞ্জসং বাদদাতা:
রূপগঞ্জের তারাবো পৌরসভার গন্ধর্বপুর এলাকার দরিদ্র মেধাবী ছাত্র ও ইজিবাইক চালক মমিন মিয়াকে (২৫) অপহরণের পর মুক্তিপণ আদায়ের চারদিন পরেও শুক্রবার (১৬ জুলাই)বিকেল পর্যন্ত মামলা রুজু করেনি পুলিশ। এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে মমিনমিয়া ও তার পরিবারের সদস্যরা। সন্ত্রাসীরা তাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করছে। পুলিশ নিরব ভ‚মিকায় রয়েছেবলেঅভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, রূপগঞ্জের গন্ধর্বপুর গ্রামের গরিব কাঠুরিয়ার সন্তান মমিনমিয়া। ছোটবেলা থেকেই লেখাপড়ার অদম্য ইচ্ছে তার। সে বর্তমানে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সরকারি তোলারাম কলেজে মাষ্টার্সে লেখাপড়া করছে। হতদরিদ্র হওয়ায় ও লকডাউনে মমিনমিয়া কখনও টিউশনি আবার কখনও শাক-সবজি বিক্রি করে কখনও বা দিন মজুর আবার কখনও ভাড়ায় রিক্সা কিংবা ইজিবাইক চালিয়ে অর্থ উপার্জনকরে তার লেখাপড়া ও সংসার চালায় মমিনমিয়া। এরই মধ্যে গত ১৩ জুলাই মঙ্গলবার ভুলতা এলাকা থেকে ইজিবাইকে বাড়ি ফেরার পথে ১০/১২ সদস্যের একদল সন্ত্রাসী তার গতিরোধ করে। পুলিশপরিচয়ে তাকে অপহরণ করে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ দাবি করে পরিবারের সদস্যদের কাছে মোবাইলে ফোন করে। মমিনমিয়া ইজিবাইকে একটি শিশুবাচ্চাকে চাপা দিয়েছে মর্মে তার চিকিৎসার জন্য পরিবারের সদস্যদের কাছে ৩০ হাজার টাকা পাঠাতে বলে সন্ত্রাসীরা। তানাহলে গণপিটুনিতে মমিনমিয়াকে হত্যা করা হতেপারে বলে তিনি আশঙ্কা করেন। পরে তাদের দেয়া মোবাইল নাম্বরে মমিনের বড় ভাই আমিন মিয়া ১০ হাজার টাকা বিকাশে পাঠান। এক পর্যায়ে মমিনমিয়া মুক্ত হয়ে সন্ত্রাসীদের কার্যক্রমের প্রতিবাদ করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা হামলাচালিয়ে মমিনের বামহাত ও ডান পা ভেঙ্গে দেয়। রাতে অপহরণকারীরা ইজিবাইক ও মমিনমিয়াকে শীতলক্ষ্যার বীরপ্রতীক গোলাম দস্তগীরগাজী সেতুরকাছে ফেলেযায়। পরে মমিনমিয়াকে উদ্ধার করে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।এ ব্যাপারে মমিনমিয়ার বড়ভাই আমিনমিয়া বাদী ছয়জনকে আসামীকরে রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। রূপগঞ্জ থানার এসআই ও অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা বিএম মেহেদী হাসান বলেন, অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা মিলেছে। এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর হুমায়ূন কবির তদন্তকরেন, মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com