Logo

তারাব পৌরবাসীর সাথে আছি মেয়র হাসিনা গাজী

তারাব পৌরবাসীর সাথে আছি মেয়র হাসিনা গাজী

রূপগঞ্জ সংবাদদাতা
রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি ও তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী বলেছেন,তারাবো পৌরবাসীর সুখে-দুঃখে আমি সবসময় পাশে রয়েছি। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর সার্বিক সহযোগিতায় তারাবো পৌরসভায় অনেক উন্নয়ন করেছি। পৌরসভাকে এগিয়ে নিতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর সুফল প্রজন্মের পর প্রজন্ম ভোগ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় প্রত্যয় নেতৃত্বে পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন হওয়ায় তার নাম প্রজন্মের পর প্রজন্ম মনে রাখবে। প্রধানমন্ত্রীর দূরদৃষ্টি সম্পন্ন বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আজ স্বপ্নের পদ্মা সেতু বাস্তবায়ন হয়েছে। পদ্মা সেতুর মাধ্যমে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে পরিচিত হচ্ছে। এ অর্জনের কারণে বাংলাদেশ বহুদুর এগিয়ে যাবে। সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে রূপগঞ্জ উপজেলার খাদুন এলাকায় তারাবো পৌরসভা কার্যালয়ের অডিটোরিয়ামে তারাবো পৌর পরিষদের মাসিক সাধারণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সভাপতি ও তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী। পদ্মা সেতু বাঙালির ইতিহাসে একটি মাইলফলক। মেয়র হাসিনা গাজী বলেন, অর্থনৈতিক মুক্তির পাশাপাশি এই সেতু বাঙালির জীবনের একটি বড় অর্জন। বাঙালি জাতির সবচেয়ে বড় অর্জন বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা। স্বাধীনতার ৫০ বছর পেরিয়ে গেলেও নিজেদের অর্থনৈতিক সক্ষমতা দেখানোর মতো দুঃসাধ্য কারো ছিলনা। নিজস্ব অর্থায়নে এতো বড় বাজেটের প্রকল্প বাস্তবায়ন করে বিশ্বকে অর্থনৈতিক সক্ষমতা দেখানোর সেই দুঃসাধ্য দেখালেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পদ্মা সেতু এখন আর বাঙালির কাছে স্বপ্ন নয়। পদ্মা সেতু এখন বাঙালির কাছে এক গৌরবোজ্জ্বল সোনালী অহংকার। এই পদ্মা সেতুই আবার বিশ্বকে জানান দিল বাঙালিদেরকে দাবিয়ে রাখা সম্ভব নয়। বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা আর শেখ হাসিনার পদ্মা সেতু। স্বাধীনতা-পদ্মা সেতু দু’টোই বাঙালি জাতির জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার সাথে সাথে দেশে আমূল পরিবর্তন ঘটেছে। ভাগ্য খুলেছে বীরের জাতি বাঙালিদের। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একজন সহযোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি। তারাব পৌরবাসী সুখে থাকলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণ এগিয়ে যাবে। তারাবো পৌরবাসীর সুখে-দুঃখে আমি সবসময় পাশে রয়েছি। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর সার্বিক সহযোগিতায় তারাবো পৌরসভায় অনেক উন্নয়ন করেছি। পৌরসভাকে এগিয়ে নিতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, তারাবো পৌরসভার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, তারাবো পৌরসভার কাউন্সিলর আমির হোসেন ভুঁইয়া, আক্তার হোসেন মোল্লা, মাহবুবুর রহমান জাকারিয়া, রফিকুল ইসলাম মনির, আনোয়ার হোসেন, রাসেল সিকদার, জসিম উদ্দিন, মোহাম্মদ হামিদুল্লাহ, মাহফুজা আক্তার, লায়লা পারভীন ও জোসনা বেগমসহ অনেকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

2 × two =


Theme Created By Raytahost.Com