Logo
HEL [tta_listen_btn]

পরকীয়ার বলি রোকসানা…….. ৯ জনের নামে থানায় মামলা

পরকীয়ার বলি রোকসানা…….. ৯ জনের নামে থানায় মামলা

সোনারগাঁ সংবাদদাতা
সোনারগাঁয়ে বিয়ের দাবিতে পরকিয়া প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয়া স্বামী পরিত্যক্তা নারী রোকসানা আক্তারকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (২০ জুলাই) সকালে নিহতের ছোট ভাই এনামুল হক বাদি হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ ৪-৫জনকে অজ্ঞাত আসামী করে এ মামলা দায়ের করেন। তালতলা ফাঁড়ি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রাজু আহম্মেদ মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
জানা যায়, উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের হিনানপুর দেওয়ান বাড়ি গ্রামের মৃত রাজু মিয়ার ছেলে মনির হোসেনের সঙ্গে বাইশটেকি গ্রামের মৃত মনু মিয়ার মেয়ে স্বামী পরিত্যক্তা রোকসানা আক্তারের পরকিয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। দীর্ঘদিন ধরে এ পরকিয়া সম্পর্কে বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার উভয়ের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হয়। এ বিষয়টি উভয়ের পরিবারসহ এলাকার লোকজন অবগত রয়েছেন। সোমবার (১৮ জুলাই) ভোরে প্রেমিক মনিরের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেয় রোকসানা। এসময় মনিরের বাড়ির লোকজন তাকে একাধিকবার বাড়ির বাইরে টেনে হিঁচড়ে বের করে দেয়। রোকসানা তার অবস্থানে অনড় থাকায় দুপুরে মনির হোসেন, তার ভাই গোলজার, খোকন ওরফে খোকা, ছেলে রানা, মনিরের স্ত্রীসহ ১০-১২ জনের একটি দল এসএস পাইপ ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত জখম করে রোকসানাকে। মুমূর্ষু অবস্থায় রোকসানাকে মনির হোসেন, তার ছেলে রানা ও মনিরের স্ত্রী ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে রোকসানার মৃত্যু হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রোকসানাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ খবর পেয়ে মনির হোসেন ও তার পরিবারের লোকজন লাশ রেখেই মোবাইল বন্ধ করে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।
মামলার বিষয়ে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, নারীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় নিহতের ভাই বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com