Logo
HEL [tta_listen_btn]

১১ বছর পর ধর্ষণ ও জোড়া খুন মামলার রায়  আড়াইহাজারে ২ জনের যাবজ্জীবন

১১ বছর পর ধর্ষণ ও জোড়া খুন মামলার রায়  আড়াইহাজারে ২ জনের যাবজ্জীবন

আড়াইহাজার সংবাদদাতা
৪ বছরের ছেলেকে নিয়ে ভিক্ষা করতেন ২৫ বছর বয়সী অজ্ঞাত নারী। সেই নারীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শী ছেলে কান্না করায় সেই ছেলেকে হত্যার পর মাটি চাপা দেয়া হয়। খুন করা হয় ধর্ষণের শিকার নারীকেও। অবশেষে দীর্ঘ ১১ বছর পর সেই হত্যা ও ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত দু’জনকে যাবজ্জীবন কারাদÐ দেওয়া হয়েছে।নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল বুধবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন। দÐপ্রাপ্তরা হলো, আবুল কাশেম ও বাবুল হোসেন। তাদের বাড়ি আড়াইহাজার উপজেলার অস্তিআন্দি গ্রামে। এর সত্যতা নিশ্চিত করে আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এড. রকিব উদ্দিন আহমেদ বলেন, একজন অজ্ঞাত ভিক্ষুক নারীকে ধর্ষণের পর তার শিশু ছেলেসহ হত্যা মামলায় দু’জনের যাবজ্জীবন কারাদÐ দিয়েছেন আদালত। মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালের ৬ মার্চ আড়াইহাজারের দড়িগাঁও পুরনো কবরস্থান এলাকায় মাটির নিচ থেকে অজ্ঞাত এক নারী ও শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে এই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়। নারায়ণগঞ্জ আদালত পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান বলেন, আড়াইহাজারের দড়িগাঁও এলাকায় ২৫ বছর বয়সী এক মহিলাকে ধর্ষণ করে তার ৪ বছরের ছেলেসহ পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে মাটি চাপা দিয়ে দেয়। এই মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্ত শেষে দু’জন আসামীকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট প্রদান করে। সেই মামলার বিচার কার্যক্রম শেষে ২ আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদÐ প্রদান করেছেন। এর আগে হত্যার অভিযোগে তাদের মৃত্যুদন্ডের দিয়েছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com