Logo
HEL [tta_listen_btn]

বন্দরে ২০ দিনে ৪ লাশ

বন্দরে ২০ দিনে ৪ লাশ

বন্দর সংবাদদাতা
বন্দরে আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে মিশুক ও অটোরিকশা চালক খুনের ঘটনা। এ নিয়ে ২০ দিনে ৪ লাশ উদ্ধার হয়েছে। এতে ছড়িয়ে পড়েছে জনমনে আতংক। সচেতন মহল মনে করছেন আইনশৃঙ্খলার অবনতির দিকে যাচ্ছে। সূত্রমতে, সর্বশেষ সোমবার (৩ অক্টোবর) সকাল পৌঁনে ৯টায় বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের কল্যান্দীস্থ খন্দকার এগ্রো র্ফামের রাস্তার প¦ার্শের একটি ডোবা থেকে অজ্ঞাত ৮ বছরের এক কিশোরী মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার(১ অক্টাবর) সকালে কলাগাছিয়া নরপদি কার্লভার্ট সংলগ্ন চানপুর এলাকার মোস্তফা কামালের জমির নালা থেকে উদ্ধার করা হয় মিশুকচালক কায়েস (১৮) এর হাত-পাঁ ও মুখ বাঁধা অর্ধগলিত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে বন্দর থানা পুলিশ। মিশুকচালক কায়েস (১৮) এর হাত-পাঁ ও মুখ বাঁধা হত্যা করে মিশুক নিয়ে চলে যায় খুনিরা। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের দিঘলদীস্থ জনৈক কাজী কাইয়ুম মিয়ার নিঝুম বিটা বাড়ি থেকে হাত-পাঁ বাধা অবস্থায় মিশুক চালক ফেরদৌস (১৮) এর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। মিশুক চালক ফেরদৌস (১৮) কে গলা কেটে হত্যার পর লাশ ফেলে দিয়ে মিশুক নিয়ে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টায় বন্দর থানাধীন ১নং খেয়াঘাটস্থ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স সংলগ্ন শীতলক্ষা নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় আল আমিন (৮) নামে এক শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com