Logo
HEL [tta_listen_btn]

রাইফেল ক্লাবে ছাত্রলীগের সভায় শামীম ওসমান -বিএনপির জন্য মহিলালীগই যথেষ্ট

রাইফেল ক্লাবে ছাত্রলীগের সভায় শামীম ওসমান -বিএনপির জন্য মহিলালীগই যথেষ্ট

নিজস্ব সংবাদদাতা
নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, নারায়ণগঞ্জে কিছু কিছু লোক আছে আদর-বাদর টাইপের। এরা গালাগালি করে বক্তব্য দেয়। নিজেরা বক্তব্য দেয় আর নিজেরাই শুনে। আমরা ওইসব পাগল-ছাগল নিয়ে চিন্তা করি না। আমাদের ছাত্রলীগ-যুবলীগও তাদের নিয়ে চিন্তা করে না। তাদের জন্য আমাদের মহিলালীগ, যুব মহিলালীগই যথেষ্ট। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে পিপিলিকার পাখা গজিয়েছে। আমরা কাউকে আন্ডার এস্টিমেট করি না। আপনারা ২০০১ থেকে যেভাবে আমাদের ওপর অত্যাচার ও নির্যাতন করেছিলেন তাদের উদ্দেশে বলতে চাই, জনগণ রায় দিলে ক্ষমতায় যান, আপত্তি নেই। তবে নারায়ণগঞ্জে এমন কোনো কিছু করার চেষ্টা করবেন না। আপনারা বোমা বøাস্ট করিয়েছিলেন, একবার যদি বুঝতে পারি, এমন কোনো কিছু আবার করতে যাচ্ছেন তাহলে ভালো হবে না। বুধবার (১৫ ফেব্রæয়ারি) বিকেলে শহরের চাষাঢ়া রাইফেল ক্লাবে ছাত্রলীগের এক সভায় অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে শামীম ওসমান বলেন, ২০০৮ সালে আপনাদের নিজেদের লোক ছিল, ২৯টি সিট পেয়েছিলেন। এবার দাঁড়ান সুষ্ঠু নির্বাচন হলে ২টি সিটও পাবেন না। তারা নিজের দলের নেতাদের হত্যা করে ইস্যু তৈরির চেষ্টা করবে। ওরা কিছু করতে পারবে না। কারণ শয়তান কখনও আল্লাহর সাথে পারে না। শেখ হাসিনার ওপর আল্লাহর রহমত আছে। ওরা স্টুপিড, বোঝে না উনি বার বার বাঁচেন কেন। কারণ আল্লাহ বাঁচান। তিনি আরো বলেন, ছাত্রলীগের ছেলেরা আমাদের বলেছিল আপনারা মঞ্চে থাকবেন। আমি বলেছি না আমরা থাকবো না। তোমরা থাকবে এবং বক্তব্য দেবে। আমরা দেখতে চাই, আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম সেই রকম শক্তিশালী কিনা। ছাত্রলীগ আমাদের সন্তান সংগঠন। তাদের উৎসাহিত করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। আগামী ১৮ তারিখ দুপুর আড়াইটায় ওসমানী স্টেডিয়ামে ছাত্রলীগ সমাবেশ ডেকেছে। তিনি বলেন, আমরা চাই ওসমানী স্টেডিয়ামে যেন সেদিন স্মরণকালের শ্রেষ্ঠ সমাবেশ হয়। আমরা দেখতে চাই ছাত্রলীগ নেতারা কী বলে। অনেকে বলে কমিটি নেই, কমিটি লাগে না। আমি যখন ছাত্রলীগ করি তখন কোনো কমিটি ছিল না। আমি যখন তোলারাম কলেজের ভিপি পদে নির্বাচন করি আমারই এক চাচা ছাত্রলীগ থেকেই আমার বিরুদ্ধে আরেকজনকে দাঁড় করিয়েছিল। এমপি শামীম ওসমান আরো বলেন, আমাকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছিল আমি দেয়াল টপকে পালিয়ে এসেছিলাম। আমাকে মন্ত্রী করতে চেয়েছিল আমি হইনি। আমরা নিজেদের নেতা ভাবিনি এখনও ভাবতে চাই না। অনেকে ডাকলে ১০টা লোকও আসে না। কিন্তু নিজেদের নেতা ভাবেন। ছাত্রলীগ নেতাদের বলব যাদের সামনে আনবেন সিএস, আরএস, পর্চা দেখে আনবেন। আমরা দেয়ার মত লোক চাই। খাই খাই লোক চাই না। শামীম ওসমান বলেন, একটা কথা বলতে চাই, আমি থাকি বা না থাকি; আপনারা কিছু করতে পারবেন না। আমরা যদি একবার জনগণের কাছে বিচার দেই, জনগণ কিন্তু আপনাদের ছাড় দিবে না। অমুকের উকিল মা, তমুকের উকিল বাপ দিয়ে কোন কাজ হবে না। তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে কিছু কিছু লোক আছে আদর-বাদর টাইপ। গালাগালি করে বক্তব্য দেয়। নিজেরা বক্তব্য দেয়, নিজেরাই শুনে। আমরা তোমাদের মতো পাগল-ছাগল নিয়ে চিন্তাই করি না। আমাদের ছাত্রলীগ-যুবলীগও তোমাদের নিয়ে চিন্তা করে না। তোমাদের জন্য আমাদের মহিলা লীগ, যুব মহিলা লীগই যথেষ্ট। ওনাদের ঝাড়ুর বাড়ি খেলেই পালাবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রবিউল হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিএম আরমান, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Theme Created By Raytahost.Com