Logo

করোনাভাইরাসের শঙ্কায় আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর সংখ্যা প্রতিনিয়তই কমে যাচ্ছে।

আড়াইহাজার সংবাদ দাতা : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের শঙ্কায় আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর সংখ্যা প্রতিনিয়তই কমে যাচ্ছে। প্রতিদিন যেখানে বর্হিবিভাগে চিকিৎসা গ্রহণ করতে রোগী আসতো ৪ থেকে ৫ শতাধিক, সেখানে মঙ্গলবার বর্হিবিভাগে রোগীর উপস্থিত ছিল নিতান্তই কম।

 

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, ৫০ শয্যার সরকারি এই হাসপাতালে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ভর্তি আছেন ৪১ জন। খোলা হয়েছে সর্দি, কাশি ও জ্বর কর্নার। এখানে আগত ব্যক্তিদের উপসর্গ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। সন্দেহ হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

 

অপরদিকে (কভিড-১৯) করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮ জনে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আভাস দেয়া হয়েছে। আজ বেলা ১১টা পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের থেকে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

 

সরজমিন দেখা যায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আগতদের জন্য হাত ধোয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যে সময়টাতে রোগীদের চাপে চিকিৎসকরা বর্হিবিভাগে হিমশিম খেতো। আজ ছিল ঠিক তার উল্টো চিত্র। প্রতিদিনই রোগীর সংখ্যা কমে যাচ্ছে। খুব বেশি প্রয়োজন না হলে রোগীরা হাসপাতালে আসছে না। যারাই আসছেন, তারা বর্হিবিভাগ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে চলে যাচ্ছেন।

 

অপরদিকে উপজেলার বিভিন্ন ফার্মেসিতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সংকট চলছে। খোঁজ করে কোনো দোকানেই এটি পাওয়া যায়নি। দ্রব্যমূল্য নিন্ত্রয়ণে প্রতিদিনই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

 

আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচএফপিও ডা. সায়মা আফরোজ ইভা ও আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা.আশরাফুল আমীন বলেন, উপজেলায় এ পর্যন্ত কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি। যারা সন্দেহের তালিকায় আছেন। তাদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। রোগীদের সেবা দিতে আমাদের চিকৎসক ও নার্সরা প্রস্তুত আছেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *