Logo

‘বীর’ খ্যাত কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের স্ত্রীর জীবন সংকটাপন্ন

‘বীর’ খ্যাত কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের স্ত্রীর জীবন সংকটাপন্ন

 

ওবায়দুল কবির:-   মহামারি করোনাভাইরাসের সংকটে ৬১ লাশ দাফনসহ জীবন বাজী রেখে মানুষের জন্য কাজ করা নারায়ণগঞ্জের ‘বীর’ খ্যাত কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের স্ত্রীর জীবন সংকটাপন্ন। করোনায় আক্রান্ত স্ত্রী আফরোজা খন্দকার লুনার শ্বাসকষ্ট বাড়ার পাশাপাশি পুরো শরীর নিস্তেজ হয়ে গেছে। স্বামী খোরশেদ করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরে আরো ভেঙ্গে পড়েন তিনি।খোরশেদ জানান, শনিবার বিকেল থেকে নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকায় সংকটাপন্ন স্ত্রীর জন্য আইসিইউ ম্যানেজ করতে বিভিন্ন হাসপাতালে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।শনিবার রাতে তিনি গণমধ্যমকে জানান, আমার স্ত্রীর অবস্থা সংকটাপন্ন। কোথাও আইসিইউ খালি পাচ্ছি না। নারায়ণগঞ্জে শুধু সাজেদা হাসপাতালে চারটি আইসিইউ বেড রয়েছে। সেগুলোও পরিপূর্ণ। আর কোথাও নেই। এক ঘণ্টার মধ্যে কোনো ব্যবস্থা না হলে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া ছাড়া আর উপায় নেই।স্ত্রীর গুরুতর অবস্থায় ঢাকায় জরুরি চিকিৎসা নিয়েও চিন্তিত এই করোনা বীর। তিনি তার স্ত্রী লুনার জন্য নারায়ণগঞ্জবাসীসহ দেশবাসীর কাছে দোয়া চান।

শনিবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে আলোচিত কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের। এর আগে তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসোলেশনে বাড়িতেই রয়েছেন।কাউন্সিলর খোরশেদ বলেন, আমি রিপোর্ট পেয়েছি। এতে আমার দেহে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। আমি করোনা শুরু হওয়ার পর থেকে শুক্রবার পর্যন্ত ৬১টি লাশ দাফন করেছি। এখন নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে চলে গেছি। আমি নিজেই চিকিৎসা নেব বাড়িতে থেকে।তিনি জানান, আমি আক্রান্ত হলেও আমার সকল কার্যক্রম চলবে। আমার টিম সক্রিয় থাকবে, আমার ফোন চালু থাকবে। আমি যতদিন বেঁচে আছি এক বিন্দুও নড়ব না

তথ্যসুত্র-শীর্ষনিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

twelve + eleven =


Theme Created By Raytahost.Com