Logo

বন্দরে ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্ আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর আগমনে বন্দরে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি

বন্দরে ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্ আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর আগমনে বন্দরে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি

বন্দর সংবাদদাতা:
নারায়ণগঞ্জেরবন্দরে একটি ওয়াজ মাহফিলে ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর আগমনের কারনে চরম উক্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বন্দরে এনায়েত উল্ল্যাহ আব্বাসী আগমন ঠেকাতে স্থানীয় এলাকাবাসী গত ৭ ডিসেম্বর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বন্দর থানা অফিসার ইনর্চাজ এর বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। একরামপুর এলাকার একাধিক ব্যক্তি গনমাধ্যমকে জানান , আমরা মুসলিম আমরা আমাদের ধর্মকে জীবনের চাইতে বেশী ভালোবাসি। আমরা ওয়াজ ও দোয়ার মাহ্ফিলের বিপক্ষে নই। আমরা বিপক্ষে ড.সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্ আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর। কারন তিনি সরকার বিরোধী কথা বলে এবং কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙার প্রধান ওসকানি ধাতা। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপকর্মের সংবাদ আমরা বিভিন্ন পত্রপত্রিকার মাধ্যমে পেয়েছি আমরা চাইনা ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্ আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর বন্দরে এসে ওসকানি মুলক কিছু কথা বলে শান্তি প্রিয় বন্দরকে অশান্তি করে তোলক। এছারাও বর্র্তমানে করোনার মহামারীর মধ্যে ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্ আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর বন্দরে আগমনে ধর্মপ্রান মুসলমান কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ হাজার উপস্থিত থাকতে পারে এতে আমরা এলাকাবাসী নিরাপদ নই।প্রসঙ্গত, আগামী ১১ডিসেম্বর (শুক্রবার) একরামপুর সরকারী প্রাথকি বিদ্যালয় মাঠে ড. সাইয়্যেদ মোহাম্মদ এনায়েত উল্লাহ্আব্বাসী ওয়া সিদ্দীকীর আগমনের কথা। সেখানে তিনি একটি ওয়াজ মাহফিলে যোগ দিবেন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *