Logo

বন্দরে মায়ের সামনে স্কুলছাত্রী মেয়েকে যৌনহয়রানী ঘটনায় থানায় মামলা

বন্দরে মায়ের সামনে
স্কুলছাত্রী মেয়েকে যৌনহয়রানী ঘটনায় থানায় মামলা

বন্দর সংবাদদাতা

বন্দরে মায়ের সামনে থেকে ছিনিয়ে নিয়ে স্কুল ছাত্রী মেয়ে (১৩)কে যৌন হয়রানি করার ঘটনায় তানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার সকালে ভূক্তভোগী স্কুল ছাত্রী মা বাদী হয়ে লম্পট জনী ও তার মামা মাসুদকে আসামী করে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ দুপুরে ভিকটিমকে উদ্ধার করে ২২ ধারায় আদালতে প্রেরণ করেছে। জানা গেছে, বন্দর উপজেলার পূর্ব কেওঢালা এলাকার (১৩) বছরের এক কিশোরী দেওয়ানবাগ মুক্তদারা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করে আসছে। এর ধারাবাহিকতায় গত ১২ জুন বিকেলে স্কুল ছাত্রী ও তার মা মদনপুর বাজারে আসে জুতা কেনার জন্য। ওই সময় উৎপেতে থাকা লম্পট জনীসহ কয়েকজন স্কুলছাত্রীকে বাজার এরাকা থেকে অপহরন করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরে গত ১৩ জুন রোববার অপহৃতা স্কুল ছাত্রী বন্ধী শালা থেকে কৌশলে পালিয়ে আসে। এ ঘটনার পর সোমবার সকাল সাড়ে ৯ পরে স্কুল ছাত্রী মা তার মেয়েকে নিয়ে ঢাকা উদ্দেশ্যে রওনা করার জন্য মদনপুর বাসস্ট্যান্ডে আসলে ওই সময় উৎপেতে থাকা একই উপজেলার পশ্চিম কেওঢালা এলাকার আব্দুল গাফফার মিয়ার লম্পট ছেলে জনী ও একই এলাকার আনোয়ার আরী মিয়ার ছেলে মাসুদ ক্ষিপ্ত হয়ে মায়ের সামনে থেকে স্কুল ছাত্রী মেয়েকে ছিনিয়ে নেয়। পরে লম্পট জনী স্কুল ছাত্রীর ইচ্ছা বিরুদ্ধে যৌন হয়রানী করে। এ ব্যাপারে বন্দর থানার অফিসার ইনর্চাজ দিপক চন্দ্র সাহা গনমাধ্যমকে জানান, স্কুল ছাত্রীকে যৌনহয়রানী ঘটনায় থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। আমরা ভিকটিমকে উদ্ধার ২২ ধারায় আদালতে প্রেরণ করেছি। যৌনহয়রানী মামলা আসামীদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যহত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

eighteen − 16 =


Theme Created By Raytahost.Com