Logo

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষেে আহত ২০,  থানায় পাল্টাপাল্টি ৩ টি অভিযোগ 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষেে আহত ২০,  থানায় পাল্টাপাল্টি ৩ টি অভিযোগ 

সোলায়মান হাসান :
সোনারগাঁও উপজেলায় আধিপত্য বিস্তার ও গুষ্টিগত দ্বদ্ধকে কেন্দ্র করে পূর্ব বিরোধের জেরে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে নয়াগাঁও গ্রামে কয়েকটি বসতবাড়িতে হামলা ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি ৩ টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় প্রভাবশালী বাদল ও শমর আলীর নেতৃত্বে শতাধিক ব্যক্তি দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হাজী অালেক চান ও তার ছেলেদের বাড়িতে হামলা চালায়। এতে নারীও শিশুসহ ১৫ জন মারাত্নক জখম হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।
এলাকাবাসী জানায়, ঘটনার সুত্রপাত  বুধবার বিকালে। ঐদিন বিকালে গ্রামের কয়েকজন যুবক গল্প করার সময় আধিপত্য বিস্তার ও গুষ্টিগত দ্বদ্ধকে কেন্দ্র করে পারিবারিক বিরোধের জেরে গ্রামের কয়েকজন তাদের অকত্য ভাষার গালিগালাজ করে। পরে বিতর্কের একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটনা ঘটে। ঘটনায় বাদল হোসেন বাদী হয়ে থানায় অভিযোগও দায়ের করেছেন।পরে এরই জেরে বৃহস্পতিবার সকালে বাদল ও শমর আলীর নেতৃত্বে শতাধিক লোক দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অালেক চানের বাড়ি হামলা চালায়। এসময় বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন, টেলিভিশন, স্বর্ণালংকারসহ নগদ কয়েক লক্ষ টাকা লুট হয়েছে বলে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে সোনারগাঁ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহাজ উদ্দিন বলেন, বুধবার সন্ধায় আসছিলাম গ্রামের পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হাজী আলাউদ্দিন ও হাজী জজ মিয়া বিষয়টি মিমাংসা করার দ্বায়িত্ব নিলে পুলিশ তাদেরকে ছেড়ে দেয়। পরে রাতে বাদল বাদি হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ করেছে। আবার আজ সকালে মারামারির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে তাদের নিবৃত্ত করি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

two × 4 =


Theme Created By Raytahost.Com