Logo

শিল্পকলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ডিসি মঞ্জরুল হাফিজ  আমাদের সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ

শিল্পকলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ডিসি মঞ্জরুল হাফিজ  আমাদের সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা
জেলা প্রশাসক মঞ্জরুল হাফিজ বলেছেন, কালচারাল এ্যাক্টিভিটিস কমে যাওয়ার কারণেই সমাজে মাদক ছড়িয়ে পড়ছে। এখানে আমাদের হাত দিতে হবে। আমাদের কালচারকে আমাদের ধারণ করতে হবে। ১৯১৩ সাল থেকে এখানে রাজাদের বসবাস। রাজনৈতিক আন্দোলনেরও তীর্থস্থান এটা। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হলে আমাদের কালচারাল এ্যাক্টিভিটিস বাড়াতে হবে। শনিবার (১৯ ফেব্রæয়ারি) জেলা গ্রন্থাগারে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির ৪৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।  ডিসি বলেন, এখানে বক্তব্য রেখেছেন আমাদের প্রেসক্লাবের সভাপতি, চন্দন শীল ও শামীম ওসমান এমপি। তাদের প্রত্যেকের জীবন, এক একটা গল্প। জীবন থেকে নেয়া গল্প, বাস্তবতায় তারা যা দেখেছেন তা বলেছেন।  তিনি আরও বলেন, আমাদের এমপি বলেছেন বাবা মাকে সম্মান করো। এটাই আমাদের কালচার। আমরা এখনও কাউকে বা হাত দিয়ে কোন জিনিস দেই না, আমরা মুরুব্বিদের দেখলে উঠে দাঁড়াই। এখনও গ্রামের মানুষ শিক্ষকদের দেখলে পায়ে ধরে সালাম করে। আমাদের সংস্কৃতি অনেক সমৃদ্ধ।  মানুষের একটি দেহ আছে আর একটি মন আছে। দেহ সুন্দর বা অসুন্দর হতে পারে। আল্লাহ আমাকে সৃষ্টি করেছেন। কিন্তু একজন হৃদয়বান মানুষ হওয়া শিখতে হয়। তাই আমরা অন্যান্য পশুপাখি থেকে আলাদা। তিনি বলেন, করোনা পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট জীবাণুর একটা। বলা হচ্ছে সারা পৃথিবীর সকল ভাইরাস একত্রে করলে এটা একটি বৃষ্টির ফোটার সমান হয়। সেই ভাইরাস দুনিয়াকে থামিয়ে দিয়েছে। কালচার এমন একটা জিনিস যাকে ধরা ছোয়া যায় না। হৃদয় দিয়ে অনুভব করা যায়। এজন্য কবিরা বলেছেন, হৃদয়ে লিখা নাম রয়ে যাবে। পৃথিবীতে এজন্য আর্ট ও কালচার নিয়ে সারা দুনিয়ায় গবেষণা চলছে।  তিনি আরও বলেন, অস্ত্র, মোবাইল কোর্ট দিয়ে সবকিছু করা যায় না। তাহলে আরেকটা অস্ত্র কি হতে পারে। সেটা ভালবাসা, নৃত্য, বই পড়া। তাই বঙ্গবন্ধু এই শিল্পকলা একাডেমি গঠন করেছিলেন। এর মধ্য দিয়ে আমাদের নাটক, গান, নৃত্য শেখানো হয়। আমাদের প্রধান অতিথি বলেছেন মুক্তিযুদ্ধের কথা। ১৯৭১ সালের চরমপত্রের কথা আমরা শুনেছি। বঙ্গবন্ধুর ভাষণ থেকে অংশ লেখা হত। সেখানে বাংলা গান সকলকে শক্তি যোগাতো। এসকল গান আপনার ভেতর তেজের সৃষ্টি করে। এই শিল্পকলার চর্চা ঠিকমত হলে মানুষ তার মানবতা ফিরে পায় এবং একে অপরকে সম্মান করতে জানে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজের সভাপতিত্বে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহিদ পারভেজ চৌধুরী, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ্ আলম খন্দকার, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চন্দন শীল, জেলা কালচারাল অফিসার রুনা লায়লাসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

four × 2 =


Theme Created By Raytahost.Com